গরু জবাই নিষিদ্ধ হচ্ছে শ্রীলংকায়! | আমাদেরবাংলাদেশ.কম
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

গরু জবাই নিষিদ্ধ হচ্ছে শ্রীলংকায়!

  • সর্বশেষ আপডেট বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আমাদেরবাংলাদেশ ডেস্ক।। গরু জবাই নিষিদ্ধের পথে হাঁটছে শ্রীলংকা। দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে পার্লামেন্টারি গ্রুপে আলোচনায় গরু জবাই সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব করেছেন। আর এই প্রস্তাবের পক্ষে মত দিয়েছেন দেশটির পার্লামেন্টারি গ্রুপের অধিকাংশ সদস্য। গত ১২ সেপ্টেম্বর দেশটির জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে গঠিত পার্লামেন্টারি গ্রুপে এই প্রস্তাব উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে।

শ্রীলংকার সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, দেশের জনসংখ্যার সংখ্যাগরিষ্ঠদের মতের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে দাবি ক্ষমতাসীন দল পোদুজানা পেরামুনার (এসএলপিপি)। এই দলের প্রধান সমর্থক সংখ্যাগরিষ্ঠ সিংহল বৌদ্ধ সম্প্রদায়। আর রাজাপক্ষের দল জুলাই মাসের পার্লামেন্ট নির্বাচনে এই সিংহল বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সমর্থনে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়।

গরু জবাই নিষিদ্ধের পক্ষে বলতে গিয়ে এসএলপিপির মুখপাত্র ও প্রচার বিষয়ক মন্ত্রী কেহেলিয়া রামবুকবেলাকা বলেছেন, শ্রীলঙ্কার জনসংখ্যার বেশিভাগ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী। তারা অহিংসার সমর্থক। গোহত্যা একদমই পছন্দ করেন না তারা। আর দীর্ঘদিন থেকেই বৌদ্ধ ভিক্ষুরা গরু জবাই নিষিদ্ধের দাবি জানিয়ে আসছে। সে কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

কেহেলিয়া রামবুকবেলাকা আরো বলেন, এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে এক মাস দেরি হবে। সিদ্ধান্তের পর যারা গরুর মাংস খেতে চান, তাদের জন্য বাইরের দেশ থেকে কিছু মাংস আমদানি করা যেতে পারে। তবে দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠের আবেগ ও মতামতকে সম্মান করতে দ্রুতই গরু জবাই নিষিদ্ধ করা হবে।

এদিকে কিছু পর্যবেক্ষকদের মতে, রাজনৈতিক বিবেচনা থেকেই গরু জবাই নিষিদ্ধের এই প্রস্তাব তোলা হয়েছে। তবে এর কারণ ধর্মীয় নয়। কারণ বৌদ্ধধর্মে মোটের ওপর প্রাণীহত্যা নিষিদ্ধ। কিন্তু এই প্রথা বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটিতে আইন করে প্রতিপালনের নজির নেই। তাহলে হঠাৎ কেন কেবল একটি নির্দিষ্ট প্রাণীর বিষয়ে এই নিষেধাজ্ঞা? এর কারণ হিসেবে সিংহলের বৌদ্ধ সম্প্রদায়গুলো পাল্টা বলছে, দেশটিতে সাংস্কৃতিক কারণে গরুর মাংস খাওয়াকে অনুৎসাহিত করা হয়।

এনডিটিভির খবরে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৬ জুন সিংহল রাভায়া সংগঠনের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা কলম্বোয় প্রবল বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিলেন। ওই বিক্ষোভে এক ভিক্ষু নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। ওই ঘটনার পর তখনকার বিরোধীদলের অন্যতম নেতা এবং এখনকার রাষ্ট্রপতি গোটবায়া রাজাপক্ষে গরু জবাই নিষিদ্ধের প্রতিজ্ঞা করেছিলেন। সেই প্রতিজ্ঞার এখন বাস্তবায়ন হচ্ছে বলে মনে করেন অনেকে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৩৯৭,৫০৭
সুস্থ
৩১৩,৫৬৩
মৃত্যু
৫,৭৮০
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
১,০৯৪
সুস্থ
১,৪৯৮
মৃত্যু
১৯
স্পন্সর: একতা হোস্ট
© All rights reserved ©আমাদের বাংলাদেশ ডট কম
Developed By amaderbangladesh.com