জমে উঠেছে সাভার পৌরসভা নির্বাচন | আমাদেরবাংলাদেশ.কম
বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন

জমে উঠেছে সাভার পৌরসভা নির্বাচন

  • সর্বশেষ আপডেট সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক।। আগামী ১৬ জানুয়ারি প্রথম শ্রেনির সাভার পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমবারের মতো ইভিএমের মাধ্যমে ১ লাখ ৮৮ হাজার ৮৮ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তবে পৌর নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে, প্রার্থীদের প্রচার-প্রারচণা ততই জমে উঠছে।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান মেয়র আব্দুল গণি, ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির রেফাত উল্লাহ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো: মোশারফ হোসেন হাতপাখা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়া কাউন্সিলর পদে ৪০ জন এবং মহিলা কাউন্সিলর পদে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্তিতা করছেন। এদের মধ্যে পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বদ্ধিতায় নজরুল ইসলাম মানিক মোল্লা কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হয়েছেন।সাধারণ ভোটাররা মনে করছেন এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী থাকলেও মূলত নৌকা, ধানের শীষের মধ্যে লড়াই হবে। এবার কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ।

এরই মধ্যে ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে গিয়ে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সাভার পৌরসভার বাজার ও বিভিন্ন মোড়ের হোটেল, রেস্তোরাঁ এবং চায়ের দোকানগুলোতে প্রার্থীদের নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। কে বসবেন পৌর পিতার আসনে এ নিয়ে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ। পৌর এলাকার অলিগলি থেকে শুরু করে বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারে-পোস্টারে ছেয়ে গেছে।

ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায় মূলত নৌকা, ধানের শীষ প্রার্থীকে ঘিরে ভোটারদের মাঝে আলাপ আলোচনা ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ করা গেছে।

কথা হয় সাভার পৌরসভার ভোটার রশিদ মিয়া সাথে।তিনি বলেন, যার দ্বারা আমাদের পৌরসভার নাগরিকদের জীবন মান উন্নত হবে, নাগরিক সুবিধা বেশি দেবে, এমন যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দেবেন তারা।

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র ফজলে কবির বলেন, যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দেব। যিনি আমাদের এ পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে সবাইকে উপহার দিতে পারবেন। আমারা এ পৌরসভাকে আধুনিক পৌর সভা হিসেবে দেখতে চাই।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল গণি বলেন, স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা। আগামী ১৬ জানুয়ারির নির্বাচনে নৌকার পক্ষে যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে, তাতে বিজয়ের ব্যাপারে ইনশাআল্লাহ আমি শতভাগ আশাবাদী।

বিএনপি প্রার্থী রেফাত উল্লাহ বলেন, ভোটারদের মাঝে আমি যে উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখেছি, অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে ধানের শীষের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। আমি প্রশাসনের কাছে অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন আশা করছি।

সাভার পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মনির হোসাইন খান বলছেন, সাভার পৌরসভা নির্বাচনে এই প্রথম ইভিএম ভোট গ্রহণের সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ইতি মধ্যে তারা ভোটারদের ইভিএমএর মাধ্যমে ভোট কেন্দ্রে আসার জন্য প্রচারণা চালাচ্ছেন। প্রথম শ্রেণীর সাভার পৌরসভায় মোট ভোটার ১ লক্ষ ৮৮ হাজার ৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৯৪ হাজার ৫৮৭ জন ও মহিলা ৯৩ হাজার ৫০১ জন। ১৪ জানুয়ারী পৌরসভার ৮৪ টি কেন্দ্রে সকাল ৯ টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ইভিএম ভোটিং অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণভাবে সাভার পৌর নির্বাচন সম্পন্ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সাভার মডেল থানার ওসি তদন্ত সাইফুল ইসলাম তিনি বলেন, ভোটারা যাতে সুষ্ঠ ভাবে ভোট প্রদান করে বাড়ি ফিরতে পারেন সে ব্যবস্থা করা হয়েছে। নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আমাদেরবাংলাদেশ.কম/রাজু

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved ©আমাদের বাংলাদেশ ডট কম
Developed By amaderbangladesh.com