বেনাপোলে আবাসিক হোটেলে ৫ জন করোনায় আক্রান্ত | আমাদেরবাংলাদেশ.কম
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০২:১৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষঃ
বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে অবৈধ ভাবে ভারতে প্রবেশের সময় মহেশপুর  বিজিবির হাতে ৩১ জন আটক করোনা দ্রুত বেড়ে যাওয়ায়: ঢাকার সঙ্গে সাত জেলার যোগাযোগ বন্ধ ঘোষণা চার কুল,আয়াতুল কুরসিসহ বাংলা উচ্চারণ ও অর্থ হারিয়ে যাচ্ছে রুপলাল হাউজ প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে নবনিযুক্ত বিমান বাহিনী প্রধানকে র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরলেন শেখ আব্দুল হান্নান বিমানবাহিনী প্রধানের দায়িত্ব নিলেন রাজনৈতিক দলের নেতাদের মুখে সর্বদা মিথ্যাচার মানায় না: কাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছেন খালেদা জিয়া ১০ লাখ টিকা দিচ্ছে বাংলাদেশকে কোভ্যাক্স: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বেনাপোলে আবাসিক হোটেলে ৫ জন করোনায় আক্রান্ত

  • সর্বশেষ আপডেট মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
 সাগর হোসেন,বেনাপোল প্রতিনিধি।। ভারতে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতি অবনতির  কারনে বাংলাদেশের স্থল সীমান্ত বন্ধ রয়েছে। তবে যারা সে দেশের ভ্রমন, ব্যবসা বানিজ্য, চিকিৎসা সহ নানাবিধ কাজে যেয়ে আটকা পড়েছিল তারা বিশেষ অনুমতি সাপেক্ষে দেশে প্রবেশ করছে। তাদের এই ফেরা নিয়ে আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট বেনাপোল স্থল বন্দর এলাকা অত্যান্ত ঝুঁকিতে রয়েছে।
এই পথে আসা যাত্রীদের সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখছে প্রশাসন। বেনাপোলের ১৩ টি আবাসিক হোটেল সহ যশোর শহরের বিভিন্ন হোটেলে এসব যাত্রীরা থাকছে। এরই মধ্যে আজ বেনাপোলে দুটি হোটেলে ৫ জন করোনা পজিটিভ সংক্রামনে আক্রান্ত হয়েছে। এ খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ায় সাধারন মানুষ আতঙ্কগ্রসস্থ হয়ে পড়েছে। এর আগে গত মে মাসে বেনাপোল শহরের আশে পাশে ১১ জন করোনা পজিটিভ সংক্রামনে আক্রান্ত হয়েছে।

বেনাপোলের মৌ হোটেল ও নিশাত নামে দুটি হোটেলে করোনা পজিটিভে আক্রান্ত হয়েছে  ৫ জন। এর মধ্যে নিশাত হোটেলে  জয় হালদার (৪০) রক্তিম (৫) ও মনিকা বৈরাগী (৩২) পিরোজপুর জেলার ও মৌ হোটেলে জয়ন্তী রানী (৩২) রাজশাহী ও  রিম্পা বশাক (৫৫) খুলনা।

স্থানীয় শামিম হোসেন বলেন, বেনাপোল সীমান্ত শহর । এই শহরে বৈধ পাসপোর্ট যাত্রী ছাড়াও অবৈধ পথে অনেক বাংলাদেশী নাগরিক প্রবেশ করে। এরা বর্তমান সময়ে দেশে আসায় এবং পাসপোর্ট যাত্রীদের হোটেলে রাখায় বেনাপোল বাসী  আতঙ্কিত। এছাড়া যারা ভারত থেকে আসছে তাদের এই শহরের আবাসিক হোটেলে রাখলেও নেই কোন সু পরিকল্পনা। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় মানুষ হোটেল থেকে নেমে ঘোরা ফেরা ও কেনাকাটা করে আবার হোটেলে প্রবেশ করছে। এরা অবাধে ঘোরা ফেরার কারনে এই শহরে আশঙ্কজনক হারে করোনা সংক্রমণ জীবানু ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন এর স্বাস্থ্য কর্মী হাসান শিমুল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন যারা ভারত থেকে আসছে এবং করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে আসছে তাদের বাংলাদেশেও পরীক্ষা নিরিক্ষা করা হচ্ছে। যে পাচঁজনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে এরা গত ১৮ তারিখে বেনাপোলে প্রবেশ করে। এসব যাত্রীদের ওই আবাসিক থেকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।

আমাদেরবাংলাদেশ.কম/শিরিন আলম

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved ©আমাদের বাংলাদেশ ডট কম
Developed By amaderbangladesh.com