হস্তান্তরের আগেই ফায়ার সার্ভিস ভবনে ফাটল | আমাদেরবাংলাদেশ.কম
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষঃ
হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টকে দুর্গাপূজা উপলক্ষে ৩ কোটি টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ ভারত এর বন্ধুত্ব বিশ্বে রোল মডেল: নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী শপথ নিলেন সিলেট-৩ এর সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান বেতন নিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের চাপ না দেওয়ার নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর দেড় বছরপর,কাল থেকে সারাদেশে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মহাপরিচালক ঘোষণার পরই হাটহাজারী মাদ্রাসার মুফতি আব্দুস সালামের মৃত্যু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১২ সেপ্টেম্বর থেকে খোলা জাতীয় সংসদ সদস্যদের মৃত্যুর শোক নিয়েই যেনো চলতে হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পে কথিত আওয়ামীগের নেত্রী বিউটির অর্থ-বাণিজ্য ক্যাপ্টেন নওশাদের মরদেহ এখন ঢাকায়

হস্তান্তরের আগেই ফায়ার সার্ভিস ভবনে ফাটল

  • সর্বশেষ আপডেট বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১
গলাচিপা(পটুয়াখালী)সংবাদদাতা।। পটুয়াখালীর গলাচিপায় অগ্নিকান্ড ও নৌ-বিপদ থেকে রক্ষার জন্য প্রায় ৩ বছর ধরে চলে আসা একমাত্র ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন নির্মাণ কাজ শেষ। হস্তান্তরের পূর্বেই দেখা দিয়েছে নির্মাণ কাজে বিভিন্ন ত্রুটি। ইতিমধ্যে ভবনের চারিদিকে নির্মিত সুরক্ষা দেয়ালের বিভিন্ন স্থানে ফাটল ধরেছে। যে কোন সময় দেয়াল ধসে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
চারপাশে আলোকিত করার জন্য নির্মিত হয় বেশ কয়েকটি লাইট পোষ্ট। এর মধ্যে পেছনের একটি লাইট পোষ্ট হেলে পড়েছে যা, যে কোন মুহূর্তে ধসে পড়তে পারে। সুরক্ষা দেয়ালের ভেতরে অনেকগুলো গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।
এলাকাবাসীর দাবি, বহু বছর আগ থেকে এলাকার অতিবৃষ্টি ও বন্যার পানি দুটি কালভার্টের মাধ্যমে নিষ্কাশন করা হয়। অথচ
তাদের দাবি এখানে কোন খালই ছিলনা, নতুন করে খনন করা হয়েছে। মূল ভবনের পলেস্তার ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় লবনাক্ততায় ফুলে ফেঁপে ওঠার কারণে যে কোন মুহূর্তে মূল দেয়াল ধসে পড়তে পারে।এ ছাড়া ফায়ার সার্ভিসের গাড়ী আসা যাওয়ার জন্য সামনে নেই কোন সংযোগ সড়ক। ৩ বছর পূর্বে ভবন নির্মাণের দায়িত্ব পান ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স মহিউদ্দিন এন্টারপ্রাইজ। যার স্বত্বাধীকারি মো. মহিউদ্দিন আহম্মেদ। পটুয়াখালী জেলা গণপূর্ত বিভাগের দায়িত্বরত নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হারুন অর রশিদ এর ভাষ্যমতে ভবন নির্মাণের জন্য বরাদ্ধকৃত অর্থের পরিমান ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকার কিছুু বেশি। এলাকাবাসীর অভিযোগ, কাজের মান নিম্ন হওয়ায় এবং হস্তান্তরে সময়ক্ষেপন করা হয়।
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধীকারি মো. মহিউদ্দিন আহম্মেদের জানান, ভবনের পিছনে ছোট একটি খাল খননের কারণে নিচ থেকে মাটি সরে গিয়ে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে।
পটুয়াখালী জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হারুন অর রশিদ মুঠোফোনে বলেন, ভবনের পেছনে এস্কেবেটর মেশিন দিয়ে ১৫ ফুট খাল খনন করায় দেয়ালে ফাঁটল ধরেছে এবং লাইটপোষ্ট হেলে গিয়ে থাকলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ঠিক করে দিবে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved ©আমাদের বাংলাদেশ ডট কম
Developed By amaderbangladesh.com